পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, টিকেট ও ভাড়ার তালিকা

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, টিকেট ও ভাড়ার তালিকা

আপনি কি পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, টিকেট ও ভাড়ার তালিকা খুজছেন? তবে বলবো আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। আপনি এখানে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেন সম্পর্কিত সকল তথ্য পাবেন।

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস

বাংলাদেশ রেলওয়ের অধীনে চট্টগ্রাম থেকে সিলেট পর্যন্ত চলাচলকারী একটি আন্তঃনগর ট্রেন। এছাড়াও চট্টগ্রাম সিলেট পথে উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনও চলাচল করে আমাদের যাত্রা সুবিধার্থে। এই ট্রেনগুলো যাত্রা পথে আমাদের অনেক সেবা দিয়ে থাকে। এটি একটি বিলাসবহল এবং জনপ্রিয় ট্রেন। অন্যান্য ট্রেন এর মত এই ট্রেনেও রয়েছে যাত্রাকালীন অনেক সুবিধাসূমহ। এই ট্রেনটি তাদের যাত্রাকালে মোট ৬টি স্টেশনে যাত্রা বিরতি দিয়ে থাকে।

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

মূলত পাহাড়িকা এক্সপ্রেস চট্টগ্রামে সিলেট রুটে যাতায়াত করে। আপনি যদি এই রুটে পাহাড়িকা এক্সপ্রেসে ভ্রমণ করেন তবে আপনার সময়সূচীটি দরকার। আমরা পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের চট্টগ্রাম থেকে সিলেট এবং সিলেট থেকে চট্টগ্রাম রুটের সময়সূচী নিচের ছকে দিয়েছি। ছকটি দেখে এক নজরে দেখে নিন এবং ষ্টেশন থেকে টিকিট ক্রয় করুণ।

স্টেশন ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
চট্রগ্রাম টু সিলেট সোমবার ০৯ঃ০০ ১৭ঃ৫০
সিলেট টু চট্রগ্রাম শনিবার ১০ঃ১৫ ১৯ঃ৩৫

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচী

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেন চট্রগ্রাম টু সিলেট রুটে ভ্রমণের সময় ফেনী, নাঙ্গলকোট, লাকসাম, কুমিল্লাসহ কয়েকটি ষ্টেশনে কিছু সময়ের জন্য বিরতি দেয়। নিচের ছকে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচী যুক্ত করা হয়েছে।

বিরতি স্টেশন নাম ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
ফেনী ১০ঃ৩১ ১৭ঃ৫০
নাঙ্গলকোট ১১ঃ০৪ ১৭ঃ২১
লাকসাম ১১ঃ২৫ ১৭ঃ০০
কুমিল্লা ১২ঃ০৫ ১৬ঃ৩২
কসবা ১২ঃ৪৭ ১৫ঃ৪২
আখাউড়া ১৩ঃ২০ ১৫ঃ১০
হরষপুর ১৩ঃ৫৫ ১৪ঃ১৯
নওয়াপাড়া ১৪ঃ১৯ ১৩ঃ৪০
শায়েস্তাগঞ্জ ১৪ঃ৪৫ ১৩ঃ১২
শ্রীমঙ্গল ১৫ঃ২৬ ১২ঃ২৯
ভানুগাছ ১৫ঃ৪৯ ১২ঃ০২
শমসের নগর ১৬ঃ০০ ১১ঃ৫৫
কুলাউড়া ১৬ঃ২৬ ১১ঃ২৪
মাইজগাঁও ১৭ঃ০৮ ১০ঃ৫৩

 

ষ্টেশন আপ টাইম ডাউন টাইম
কুমিল্লা ১২ঃ১০ ১৬ঃ৩২
শায়েস্তাগঞ্জ ১৪ঃ৪৫ ০১ঃ১২
শ্রীমঙ্গল ১৫ঃ২৬ ১২ঃ২৯
কুলাউড়া ১৬ঃ২৬ ১১ঃ২৭
আখাউড়া ১৩ঃ২০ ১৫ঃ১০
লাকসাম ১০ঃ২৫ ১৭ঃ০০
ফেনী ১০ঃ৩২ ১৭ঃ৫০

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া তালিকা

পাহাড়িকা এক্সপ্রেসের টিকিটের দাম খুব বেশি ব্যয়বহুল নয়। পাহাড়িকা এক্সপ্রেসে অনেক ধরণের সিট বিভাগ রয়েছে। এগুলি হলোঃ শোভন চেয়ার, স্নিগ্ধা, এসি সিট ও এসি বার্থ। আপনি নিজের পছন্দ অনুযায়ী এক ধরণের আসন বিভাগ নির্বাচন করতে পারেন।

আসন বিভাগ টিকেটের মূল্য (১৫% ভ্যাট)
শোভন চেয়ার ৫০৫ টাকা
স্নিগ্ধা ৯৬৬ টাকা
এসি সিট ১১৫৬ টাকা
এসি বার্থ ১৭৮১  টাকা

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস একটি আরামদায়ক ট্রেন। আর্টিকেল থেকে আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করে আপনার ভ্রমণ পরিকল্পনা চূড়ান্ত করুণ।

You May Also Like

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।